জাতীয়

কক্সবাজারে মিয়ানমারের ৭ নাগরিকের যাবজ্জীবন

কক্সবাজারে ইয়াবা চোরাচালান মামলায় মিয়ানমারের ৭ নাগরিককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রোববার কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালত এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় সকল আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

একই সঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করার আদেশ দেন আদালত। অনাদায়ে প্রত্যেককে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও কক্সবাজারের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ফরিদুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, এম বেলাল হোসেন, ইয়ার মোহাম্মদ, জয়নাল হোসেন, জাকির হোসেন, মঞ্জুর আলম, আবদুর রহমান ও মো. জাকির হোসেন। তারা সবাই রোহিঙ্গা এবং মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের আকিয়াব জেলার বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা।

ফরিদুল আলম জানান, ২০২০ সালের ১ ডিসেম্বর টেকনাফের শাহপরী দ্বীপের উপকূল থেকে গভীর সাগরে মিয়ানমার থেকে মাদকের একটি বড় চালান পাচারের খবর পেয়ে কোস্টগার্ডের একটি দল অভিযান চালায়। একপর্যায়ে কোস্টগার্ড সদস্যরা শাহপরী দ্বীপ থেকে অন্তত ৭ থেকে ৮ নটিক্যাল মাইল দূরে সাগরে একটি সন্দেহভাজন ফিশিং ট্রলার দেখতে পেয়ে তা থামানোর নির্দেশ দেন। কিন্তু কোস্টগার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে ট্রলারে থাকা লোকজন পালানোর চেষ্টা করে।

এরপর ট্রলারটিকে ধাওয়া করে সাতজনকে আটক করা হয়। এ সময় ট্রলারে তল্লাশি চালিয়ে ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা মূল্যের ইয়াবা পাওয়া যায়। ঘটনার পরদিন কোস্টগার্ড টেকনাফ স্টেশনের সদস্য এম এ ইসলাম বাদী হয়ে আটকদের বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় মামলা করেন।

২০২১ সালের ২৭ অক্টোবর তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতে চার্জশিট জমা দেন। গত বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি আদালত অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বিচার শুরুর (অভিযোগ গঠন) নির্দেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের এই আইনজীবী আরও বলেন, মামলার পুরো বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে রোববার দুপুরে আদালতের বিচারক এ রায় ঘোষণা করেন। সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক সাত আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন।

Leave a Reply